YES to Sundarbans NO to projects of environmental destruction

If we say yes to the Sundarbans, then we must say no to the commercial projects harmful for its survival. Whether it is a power plant or any other commercial activity, whether it is foreign investment (FDI) or local investment, whether it is investment from India, or China or the US or any other country, even from Bangladesh, whether it increases the GDP or generates power – this position cannot…বিস্তারিত

সমস্যার আরেক নাম ‘ভিআইপি’

‘আমারে চিনস?’ বাংলাদেশে এটা একটা পরিচিত বাক্য। কাউকে লাইনে দাঁড়াতে বললে, কাউকে ট্রাফিক আইন মানতে বললে, কারও অন্যায়ের প্রতিবাদ করলে, কারও জবরদখল সরাতে বললে এ রকম কথা শোনা যায়। কারা এ রকম বলেন? যাঁরা ক্ষমতার ভারে আক্রান্ত। এটা হতে পারেন ক্ষমতাবান ভিআইপি কেউ, হতে পারেন ক্ষমতার ছোঁয়া লাগা তাঁদের ভাই, ভাতিজা, বন্ধু বা বন্ধুর ভাই কিংবা চেলা-শাগরেদ। পুলিশ, র্যাব, আইন, নীতি, শৃঙ্খলা—সবই তাঁদের ক্ষমতার অধীন। সর্বজনের টাকা তাঁদের টাকা।এটা…
বিস্তারিত

বন ও নদী বাঁচানোর যুদ্ধ

মানুষ ছাড়া বন বাঁচে বন ছাড়া মানুষ বাঁচে না। মানুষ ছাড়া নদী বাঁচে পানি ছাড়া মানুষ বাঁচে না।। তাই মানুষকে বাঁচাতেই বাংলাদেশের রক্ষাপ্রাচীর সুন্দরবন আর তার নদী বাঁচাতে হবে।বন বাঁচানোর জন্য সাধারণ ধর্মঘট বা হরতালের পূর্বদৃষ্টান্ত আছে কি না জানি না, তবে এই ইতিহাস বাংলাদেশের মানুষই তৈরি করছে। করবেই তো, এই দেশ সেই মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে সৃষ্ট, যার একটি প্রাণের গান ছিল ‘মোরা একটি ফুলকে বাঁচাবো বলে যুদ্ধ করি’। এখন সেই জাতির গান ‘মোরা…বিস্তারিত

শিক্ষার্থীদের ওপর বাণিজ্য আর পরীক্ষার চাপ

শিক্ষার্থীদের ওপর বাণিজ্য আর পরীক্ষার চাপ
পাঠ্যপুস্তক নিয়ে সর্বশেষ যে কেলেঙ্কারি হলো তার দুটো দিক আছে। একটি ছাপার ত্রুটি নিম্নমান ছাড়াও অমার্জনীয় মাত্রার ভুল। আরেকটি হলো, পাঠ্যসূচিতে উল্লেখযোগ্য মাত্রার পরিবর্তন। প্রথমটিতে প্রমাণিত হয় এসব পাঠ্যপুস্তক লেখা, সম্পাদনা ও মুদ্রণের দায়িত্বে যাঁরা আছেন, তাঁদের মধ্যে অযোগ্য ও দায়িত্বহীন লোকজন অনেক, তাঁদের নিয়োগের প্রক্রিয়ায় ব্যাপকমাত্রায় অনিয়ম বা বাণিজ্য বা অন্ধ দলীয়করণ ছাড়া এটা সম্ভব নয়। আর দ্বিতীয়টিতে প্রমাণ হয় সরকার তার রাজনৈতিক কৌশলের কারণে স্কুলের পাঠ্যবইয়েও কিছু মৌলিক…
বিস্তারিত

উন্নয়ন না সহিংসতা

‘উন্নয়ন’ শব্দটি সবার জন্য একই অর্থ বহন করে না। উন্নয়ন কি সবার জীবনকে সমৃদ্ধ করবে, নাকি বহুজনের জীবন ও প্রকৃতির বিনিময়ে কতিপয়কে দানব বানাবে— এটি নির্ভর করে উন্নয়নের ধরন কেমন আর তার গতিপথ কারা নির্ধারণ করছে তার ওপর। পুঁজির স্বৈরশাসনের মধ্যে যখন আমরা বাস করি, তখন যেকোনো উপায়ে পুঁজির সংবর্ধনকেই ‘উন্নয়ন’ নাম দিয়ে আমাদের সামনে হাজির করা হয়। তার পরিণতি যা-ই হোক না কেন, প্রচারণার আচ্ছন্নতার কারণে উন্নয়নের সঙ্গে ধ্বংস…বিস্তারিত

সপ্তম বছরে সুন্দরবন রক্ষার আন্দোলন

সপ্তম বছরে সুন্দরবন রক্ষার আন্দোলন
মহাপ্রাণ সুন্দরবন রক্ষার আন্দোলন ষষ্ঠ বছর পার করে সপ্তম বছরে পা দিল। ২০১৬ সালে এই আন্দোলন অনেক বিস্তৃত হয়েছে, নতুন অনেক মাত্রা এতে যুক্ত হয়েছে। শুধু দেশে নয়, আন্তর্জাতিকভাবেও সুন্দরবন গভীর উদ্বেগ ও দৃঢ় সংহতি সৃষ্টি করেছে। রামপাল প্রকল্পের পক্ষে প্রচারণার নানা কৌশল, বিজ্ঞাপনী সংস্থা, কনসালট্যান্টসহ ব্যয়বহুল তৎপরতার বিপরীতে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সংগঠিত আন্দোলন এবং তার সঙ্গে সংহতি জানিয়ে জনগণের বিভিন্ন অংশ থেকে স্বতঃস্ফূর্ত সক্রিয়তা অভূতপূর্ব…
বিস্তারিত

বাণিজ্যের ফাঁদে পাবলিক বা সর্বজনের শিক্ষা

পাবলিক বা সর্বজনের বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ বাণিজ্য নিয়ে টিআইবি যে রিপোর্ট দিয়েছে, তা ইঙ্গিত দেয় সর্বজনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অর্থকেন্দ্রিক নৈরাজ্যের। অস্বীকারের সংস্কৃতিচর্চার বদলে প্রয়োজন সত্য অনুসন্ধান ও সর্বজনের সজাগ ভূমিকা। এই অবস্থা সমগ্র সমাজের গতিপ্রকৃতির প্রতিফলন। কিন্তু সর্বজন বিশ্ববিদ্যালয়কে তা যখন গ্রাস করতে সক্ষম হয় তখন তা মহাবিপদ সংকেত দেয়। আপাত দৃষ্টিতে নৈরাজ্য ও বিশৃঙ্খলা দেখা গেলেও মনোযোগ দিলে বাংলাদেশের সমাজ অর্থনীতির মতো শিক্ষাখাতেও আমরা পাই শৃঙ্খলা ও ধারাবাহিকতা। এই শৃঙ্খলা…বিস্তারিত

আমাদের ঢাকা আর ফিদেলের হাভানা

এক দশক আগে যখন ত্রিমহাদেশীয় সম্মেলনের সূত্রে কিউবায় গিয়েছিলাম, তখন ফিদেল কাস্ত্রোর অসুস্থতার শুরু। তাঁর সঙ্গে আমার দেখা হয়নি। আমার বেশি আগ্রহ ছিল কিউবার সমাজের মানুষের অন্তর্নিহিত শক্তির অনুসন্ধান। সে কারণে ফিদেলের সহযাত্রী অনেক মানুষের সঙ্গে কথা বলেছি। ঘুরেছি অনেক স্থানে, প্রতিষ্ঠানে। চারদিকে সমুদ্র আর একটু দূরের ভয়ংকর প্রতিপক্ষ যুক্তরাষ্ট্রের হুমকির মধ্যে কিউবা কীভাবে মানুষ ও প্রকৃতিকে কেন্দ্রে রেখে ভিন্ন এক সমাজ গড়ে তুলেছে, তা এক বিশাল প্রশ্নই বটে। ‘বাংলাদেশের…বিস্তারিত

ফিদেল ধারণ করেছেন অসংখ্য জীবনের স্বপ্ন, কাজ করেছেন শেষ দিন পর্যন্ত

১৯৫৬ সালে মেক্সিকোর বন্দর থেকে রওনা হয়ে কিউবা মুক্ত করার দৃঢ় পণ নিয়ে দেশে প্রবেশ করেছিলেন ফিদেল কাস্ত্রো এবং তাঁর সহযোদ্ধারা। কিউবায় সিয়েরা মেইস্ত্রা পাহাড় থেকে শুরু হয়েছিল তাঁদের গেরিলা যুদ্ধ। সেই যুদ্ধে বিজয় অর্জিত হয় তিন বছরের মাথায়। ১৯৫৯ সালের ১ জানুয়ারি থেকে কিউবা প্রবেশ করে নতুন ইতিহাসে। কিন্তু পাহাড় থেকে যুদ্ধ পরিচালনার জন্য যে পোশাক নির্ধারণ করেছিলেন ফিদেল, তার আর পরিবর্তন হয়নি। ফিদেল বলেন, ‘যুদ্ধের তো শেষ হয়নি।…বিস্তারিত

সুন্দরবনের জন্য সর্বজনের দায়

২৬ নভেম্বর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সুন্দরবন রক্ষার মহাসমাবেশে হাজির হয়েছিলেন দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা হাজার হাজার নারী-পুরুষ, শিশু ও বৃদ্ধ। রামপাল প্রকল্পসহ সুন্দরবনবিনাশী সব অপতৎপরতা বন্ধ এবং জাতীয় কমিটির ৭ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে ‘চলো চলো ঢাকা চলো’ কর্মসূচি শুরু হয়েছে এর আগে ২৪ নভেম্বর। ওই দিন দেশের সাতটি প্রান্ত থেকে জনযাত্রা শুরু হয়েছিল। সরকার যদি যুক্তি-তথ্য, জনস্বার্থ, জলবায়ু পরিবর্তনে সৃষ্ট হুমকি মোকাবিলায় বাংলাদেশের করণীয়, বর্তমান ও ভবিষ্যৎ, মানুষের স্বার্থ,…বিস্তারিত

Page 6 of 25