সুন্দরবন থেকে বঙ্গোপসাগর

অন্য বহু দেশের তুলনায় বাংলাদেশের অনেকগুলো বিশেষ শক্তির দিক আছে। উর্বর তিন ফসলি জমি, ভূগর্ভস্থ ও ভূউপরিস্থ বিশাল পানিসম্পদ, নদী-নালা, খাল-বিল, ঘন জনবসতি—সবই আমাদের সম্পদ, যা অনেকের নেই। এর বাইরেও আছে সুন্দরবনের মতো অসংখ্য প্রাণের সমষ্টি এক মহাপ্রাণ। অসাধারণ জীববৈচিত্র্য দিয়ে তা সারা দেশকে সমৃদ্ধ করে, যা লাখ লাখ মানুষের জীবিকার সংস্থান করে, আবার প্রতিটি প্রাকৃতিক দুর্যোগে লাখ লাখ মানুষকে বাঁচায়। আমাদের আরও আছে বঙ্গোপসাগর। স্থলভাগের তুলনায় দ্বিগুণের বেশি আয়তনের…বিস্তারিত

মানুষের বিভেদ ও ঐক্য– সাম্প্রদায়িকতা প্রসঙ্গ

মানুষ তার জীবন যাপন করে অনেকের মধ্যে, অনেকের সঙ্গে। জীবন যাপন জীবিকা অর্জন, তার ভালো লাগা মন্দ লাগা, তার ঠিক-বেঠিক বোধ, নিজেকে নিয়ে অন্যকে নিয়ে তার ভাবনা, আনন্দ বেদনার অভিব্যক্তি, সৌন্দর্যবোধ, বর্তমান ও ভবিষ্যৎ চিন্তা, খাদ্য সবই তার জীবনের পরিচয়, তার সংস্কৃতি।মানুষের তো অনেক রকম পরিচয় থাকে। ভাষা বা জাতিগত নৃতাত্ত্বিক পরিচয় দিয়ে তার একটি সম্প্রদায়গত অবস্থান তৈরি হয়। আবার যে ধর্মীয় পরিবারে তার জন্ম তা দিয়ে সম্প্রদায়গত আরেকটি পরিচয়…বিস্তারিত

আইএমএফ মডেল ও লুটেরা গোষ্ঠীর স্বার্থ এক জায়গায় মেশে

আইএমএফ মডেল ও লুটেরা গোষ্ঠীর স্বার্থ এক জায়গায় মেশেজনমত ও যুক্তির বিরুদ্ধে গিয়ে, বিকল্প সমাধান চেষ্টা না করে বছরের শুরুতে (৩ জানুয়ারি ২০১৩ মধ্যরাত) আবারো তেলের দামবৃদ্ধি করা হলো। বাজেট প্রক্রিয়াকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে, সরকার প্রতিষ্ঠিত এনার্জি রেগুলেটরী কমিশনকে হয় পাশ কাটিয়ে, নয়তো প্রভাবিত করে অযৌক্তিকভাবে তেল, গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম উপর্যুপরি বৃদ্ধির ফলাফল সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষকে সরাসরি আক্রমণ করবার শামিল। এসব সিদ্ধান্তে কতিপয় ব্যক্তি ও গোষ্ঠী খুবই লাভবান হয় সন্দেহ নেই, কিন্তু জনগণের ওপর বহুমাত্রিক বোঝা তৈরি হয়। পণ্য…বিস্তারিত

যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দ্রুত শেষ করুন

যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দ্রুত শেষ করুনযুদ্ধকালে নিরস্ত্র নারী-পুরুষ-শিশু-বৃদ্ধের ওপর সশস্ত্র দখলদার বাহিনীর আক্রমণ, হত্যা, অগ্নিসংযোগ, ধর্ষণ ও নির্যাতনই যুদ্ধাপরাধ। ১৯৭১ সালের বাংলাদেশে এ রকম যুদ্ধাপরাধ ঘটেছে অসংখ্য। মূল যুদ্ধাপরাধী পাকিস্তান সেনাবাহিনীর লোকজন পার পেয়ে গেছে প্রথমেই। স্বাধীনতার পর ‘দালাল আইন’ করে এই দেশি যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের কার্যক্রম শুরু হয়। সে সময় এই আইনে বেশ কিছু রাজাকার ও আলবদর নেতা আটক হয়, বিচারও হয় কারও কারও। অন্যদিকে, তখন এই আইনের অপপ্রয়োগ নিয়েও অভিযোগ ওঠে। একপর্যায়ে ১৯৭৩ সালে…বিস্তারিত

মওলানা ও ভাসানীর সম্মিলন

মওলানা ও ভাসানীর সম্মিলনমওলানা ভাসানী বলে যাকে আমরা চিনি সে ব্যক্তির প্রকৃত নাম তা নয়। তাঁর নামে এই দুই শব্দের কোনোটিই ছিল না। মওলানা ও ভাসানী এ দুটো শব্দই তাঁর অর্জিত পদবী বা বিশেষণ। মওলানা ছিল তাঁর ধর্মবিশ্বাস ও চর্চার পরিচয়, আর ভাসানী ছিল সংগ্রাম ও বিদ্রোহের স্নারক। তাঁর জীবন ও জীবনের কাজ এমনভাবে দাঁড়িয়েছিল যাতে পদবী আর বিশেষণের আড়ালে তাঁর আসল নামই হারিয়ে গেছে। আসলে তাঁর নাম ছিল আবদুল হামিদ খান। ডাক…বিস্তারিত

আমরা কেন বিদ্যুতের বেশি দাম দেব?

সব যুক্তি তথ্য জনমত অগ্রাহ্য করে সরকার বারবার বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েই যাচ্ছে। এই দাম বাড়ানোর পক্ষে আছে বিশ্বব্যাংক, আইএমএফ আর বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাত দখলে নিতে তৎপর দেশি-বিদেশি গোষ্ঠী। আর বিপক্ষে সর্বস্তরের মানুষ। কার ভোটে সরকার ক্ষমতায় যায়, আর কাদের কথায় চলে? জনগণের কাছ থেকে ভোট নেওয়ার সময় এই সরকারের প্রতিশ্রুতি ছিল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার, সন্ত্রাস দমন, দ্রব্যমূল্য হ্রাস। এগুলোর কোনোটিতেই সরকারের দক্ষতার পরিচয় পাওয়া গেল না। আগের সরকারের ধারাবাহিকতায় ক্রসফায়ার,…বিস্তারিত

পদ্মা ঋণচুক্তি, বিশ্বব্যাংকের রোডম্যাপ ও জাতীয় সক্ষমতার প্রশ্ন

পদ্মা ঋণচুক্তি, বিশ্বব্যাংকের রোডম্যাপ ও জাতীয় সক্ষমতার প্রশ্নবিশ্বব্যাংক পদ্মা ঋণচুক্তি প্রত্যাহারের পর কয়েকটি প্রশ্ন সামনে এসেছে। প্রথমত, বাংলাদেশের মন্ত্রী আমলাদের বিরুদ্ধে উত্থাপিত বিশ্বব্যাংকের অভিযোগ কি সত্য? দ্বিতীয়ত, শুধু এই কারণেই কি বিশ্বব্যাংক ঋণ প্রত্যাহার করেছে নাকি অন্য কোন কারণ আছে? তৃতীয়ত, বিশ্বব্যাংকের ঋণ ছাড়া কি বাংলাদেশের উন্নয়ন সম্ভব? এবং চতুর্থত, বাংলাদেশের পক্ষে কি নিজের পায়ে দাঁড়ানো সম্ভব? বাংলাদেশের মতো ‘গরীব’ দেশের পক্ষে কি জাতীয় সক্ষমতা অর্জন সম্ভব?দুর্নীতির অভিযোগচারদিকের ঘটনাবলী থেকে পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির আয়োজন নিয়ে…বিস্তারিত

শেভ্রন ও নাইকোর কাছে আমাদের পাওনা ৪৫ হাজার কোটি টাকা

শেভ্রন ও নাইকোর কাছে আমাদের পাওনা ৪৫ হাজার কোটি টাকাজুন মাস বাংলাদেশে বাজেট ঘোষণা আর তা নিয়ে আলোচনার মাস। বাজেট আলোচনা কেন্দ্র করে দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন সম্ভাবনা, সংকট, প্রস্তাবনা ধরে অনেক আলোচনা আর বিতর্ক হয়। সরকার, আন্তর্জাতিক সংস্থা এবং অনেক বিশেষজ্ঞ দেশে যে সম্পদ সংকট আছে তার ওপরই জোর দেন এবং তা ধরে নিয়েই কথা বলেন। সম্পদ নেই, দক্ষতা নেই, ক্ষমতা নেই– এগুলোই বারবার বলা হতে থাকে। একদিকে এই সম্পদ অভাবের এই কাঁদুনি শুনি আবার অন্যদিকে দেখি আর শুনি,…বিস্তারিত

হিলারী ও মেরুদন্ড সমস্যা

বাংলাদেশসহ সারা দুনিয়ার ‘গরীব’ দেশগুলো রফতানি করে খাদ্য বস্ত্রসহ এমন ভোগ্যপণ্য, যা দিয়ে মানুষ বাঁচে। আর যুক্তরাষ্ট্রসহ ‘ধনী’ দেশগুলো রফতানি করে অস্ত্র, যা দিয়ে মানুষ মরে।সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রী হিলারী ক্লিনটন বাংলাদেশে এসেছিলেন নিরাপত্তা, সন্ত্রাসবাদ দমন ও বিনিয়োগ-বাণিজ্য নিয়ে কথা বলতে। সংবাদপত্র, টিভি টকশো, বিবরণী, ‘আড্ডা’ সর্বত্র এটাকে বাংলাদেশের জন্য ‘বিরাট সুযোগ’ ‘বিরাট সম্ভাবনা’ হিসাবেই দেখানো হয়েছে। হিলারী ক্লিনটনের সফরের আসল বৃত্তান্ত নিয়ে কমই জানা যাবে। বোঝার জন্য…বিস্তারিত

সমুদ্রসীমা রায়: স্বস্তি ও উদ্বেগ

সমুদ্র সাধারণভাবে বিশ্বের সকল মানুষের সম্পদ। কিন্তু এই বিশ্বের সকল মানুষের এই সাধারণ সম্পদ সাম্রাজ্যবাদী কিছু রাষ্ট্র আর বহুজাতিক সংস্থার মুনাফা আর দখল তৎপরতায় ক্ষতবিক্ষত, দূষিত, বিপর্যস্ত। যে সমুদ্র অপরিমেয় সম্পদের ক্ষেত্র তা বর্তমান আগ্রাসী দখলদার বিশ্বব্যবস্থায় যুদ্ধ, ভয়ংকর গবেষণা এবং মুনাফামুখি নানা তৎপরতায় মানুষের কর্তৃত্বের বাইরে। সবল কতিপয় রাষ্ট্র ও সবল ক্ষুদ্র মুনাফাভোগী শ্রেণীর আধিপত্য এই পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। এই আগ্রাসী পরিস্থিতির মধ্যে দুর্বল দেশগুলোর জনগণকে সতর্ক থাকতে হয়,…বিস্তারিত

Page 27 of 29