নিম্ন মজুরি এবং মালিকপক্ষের চার যুক্তি

আমাদের আশঙ্কাই সত্যি হলো। সরকার পোশাক খাতে নিম্নতম মজুরি নির্ধারণ করেছে মাত্র ৮ হাজার টাকা, যা বিভিন্ন শ্রমিকসংগঠনের দাবির ৫০ শতাংশ, মূল মজুরি বাড়ানো হয়েছে ১ হাজার ১০০ টাকা। আর এই বৃদ্ধির অজুহাতে আবার মালিকদের নানাবিধ সুবিধা আরও বাড়ানো হয়েছে। আগের অনেক কম মজুরির পরিপ্রেক্ষিতে ঘোষিত মজুরি বৃদ্ধি হিসেবেই হাজির করা হচ্ছে। কিন্তু নিম্ন মজুরি-নিম্ন উৎপাদনশীলতার ফাঁদ থেকে বাংলাদেশের শিল্প খাতকে মুক্ত করার জন্য দরকার ছিল একটি নতুন যাত্রা, অন্তত…বিস্তারিত

শহিদুল আটক ও সরকারের কাছে চারটি প্রশ্ন

ঘটনাটা আরও অনেক ঘটনার মতোই। রাতে কোনো সময় কিংবা ভোরে মাইক্রোবাসসহ দলে–বলে এসে ত্রাস সৃষ্টি, হুমকি-ধমকি ও জোরজবরদস্তি করে ডিবি পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া। এরপর প্রথমে অস্বীকার করা, পুলিশের নির্লিপ্ত ভাব, কয়েক ঘণ্টা বা কিছুদিন পর গ্রেপ্তার দেখানো। এরপর রিমান্ড। বিশ্ববিখ্যাত আলোকচিত্রশিল্পী, শিক্ষক ও লেখক ডক্টর শহিদুল আলমের ক্ষেত্রেও এই মডেলেই কাজ হয়েছে। তবে অপহরণের দায়িত্বে নিয়োজিত ব্যক্তিদের সংখ্যা ছিল আরও বেশি। সিসিটিভি ভাঙা হয়েছে, বাড়ির প্রহরীদের বাঁধা হয়েছে। পরের…বিস্তারিত

লুম্পেন কোটিপতিদের উত্থানপর্ব

লুম্পেন কোটিপতিদের উত্থানপর্ব১৯৮০-এর দশকের প্রথম দিকে বাংলাদেশের নব্য ধনিকদের যাত্রাপথ অনুসন্ধান করে তৎকালীন সাপ্তাহিক বিচিত্রায় আমি একটি প্রবন্ধ (প্রচ্ছদকাহিনি) লিখেছিলাম, শিরোনাম ছিল ‘কোটিপতি: মেড ইন বাংলাদেশ’। সম্ভবত এর আগে বা এই সময়েই বর্তমান প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমানের অনুসন্ধানী একটি সিরিজ প্রতিবেদন প্রকাশিত হচ্ছিল তৎকালীন সাপ্তাহিক একতায়। এর শিরোনাম ছিল ‘ধনিক গোষ্ঠীর লুটপাটের কাহিনি’। পরে এটি বই আকারে প্রকাশিত হয়েছিল। বইটি এখন বাজারে নেই, তবে এটি বাংলাদেশে ধনিক শ্রেণির উত্থানপর্ব ও তার…বিস্তারিত

ত্বকী হত্যার বিচার হতেই হবে

ত্বকী হত্যার বিচার হতেই হবেআমি প্রস্তর হয়ে মরলাম উদ্ভিদ হতেউদ্ভিদ হয়ে মরি, তো উত্থিত প্রাণেমানুষ হয়ে উঠলাম পরে, যখন সত্য উদ্ভাসিত হলোভয় কিসের? দ্বিধা কেন মৃত্যুতে? -তানভীর মুহাম্মদ ত্বকীচার দশক আগে নির্মল সেন দাবি জানিয়েছিলেন, ‘স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি চাই।’ এত বছর পরেও এই দাবি পূরণ হয়নি। সড়ক-নৌপথে ‘দুর্ঘটনায়’, কারখানায়-বস্তিতে আগুন লেগে, দখল করা জমিতে ভবন ধসে, দূষিত পানি বা খাবার খেয়ে, কাজের খোঁজে বেপরোয়া হয়ে বিদেশে যাওয়ার পথে, হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায়, নিরাপত্তাহীন নির্মাণকাজে মানুষ…বিস্তারিত

সরকারের বিজয়

সরকারের ওপর থেকে নিচ পর্যন্ত বিজয়ের সুর। এ বিজয় চিরস্থায়ী এবং অপ্রতিরোধ্য— এ রকম একটি ভাব থেকে তৈরি হয়েছে অতি আত্মবিশ্বাস। সেখান থেকে এসেছে বেপরোয়া ও থোড়াই কেয়ার মনোভঙ্গি। ভারত, চীন, রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্রসহ বৃহৎ ও প্রভাবশালী রাষ্ট্রগুলো তাদের চাহিদা পূরণ হওয়ায় খুশি,সরকারের ওপর থেকে নিচ পর্যন্ত বিজয়ের সুর। এ বিজয় চিরস্থায়ী এবং অপ্রতিরোধ্য— এ রকম একটি ভাব থেকে তৈরি হয়েছে অতি আত্মবিশ্বাস। সেখান থেকে এসেছে বেপরোয়া ও থোড়াই কেয়ার মনোভঙ্গি।…বিস্তারিত

জীবনযাত্রার অযৌক্তিক ব্যয় বৃদ্ধি কেন?

জীবনযাত্রার অযৌক্তিক ব্যয় বৃদ্ধি কেন?গত কিছুদিনে দেশের ভেতর একই সময়ে চাল, ডাল, তেল, মরিচ, পেঁয়াজ, মাছসহ অনেক পণ্যেরই দাম বেড়েছে অযৌক্তিকভাবে। বেড়েছে গ্যাস-বিদ্যুতের দাম, পরিবহন ব্যয়, বাসাভাড়া। এর একটি অংশের দাম বাজারে নির্ধারিত হয়, আর কোনোটির দাম নির্ধারণ বা বৃদ্ধি করে সরকার। এ দাম বৃদ্ধির কারণে দেশে সংখ্যাগরিষ্ঠ, সীমিত ও নিম্ন আয়ের মানুষদের জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়েছে, প্রকৃত আয়ের পতন ঘটছে। এর ধাক্কায় প্রান্তিক অবস্থানে থাকা মানুষেরা দারিদ্র্যসীমার নিচে পড়ে যায়। বিশাল জনগোষ্ঠীর খাদ্য ও পুষ্টিগ্রহণে নিম্নতম…বিস্তারিত

সরকার স্কুল করে না কেন?

সরকার স্কুল করে না কেন?‘স্যার, সরকার স্কুল করে না কেন?’ প্রশ্নটা এল পেছন থেকে, রিকশায় ওঠার মুখে। চিনি না ভদ্রলোককে। তিনি নিজের প্রশ্ন যখন ব্যাখ্যা করতে থাকলেন তখন পরিষ্কার হলো আরও অনেকের মতো তিনিও একজন দিশেহারা অভিভাবক। সন্তানকে স্কুলে ভর্তি করাবেন। চারদিকে অনেক স্কুল আছে, কিন্তু ভালো নির্ভরযোগ্য স্কুলের অভাব খুব, তাতে প্রতিযোগিতা এত বেশি যে সব মিলিয়ে তিনি থই পাচ্ছেন না। শিক্ষার যেমন বহু ধারা, তেমনি মানের ক্ষেত্রেও আকাশ-পাতাল, ব্যয়ের ক্ষেত্রেও তাই। কী…বিস্তারিত

আসল বুদ্ধিমত্তার মানুষদের কথা

আসল বুদ্ধিমত্তার মানুষদের কথাকোটি টাকা দিয়ে আনা ‘সোফিয়া’কে নিয়ে সরকারের উচ্ছ্বাস চোখে পড়ার মতো। সেই উচ্ছ্বাস সংবাদমাধ্যমের উত্তেজনার মধ্য দিয়ে মানুষের মধ্যেও সংক্রমিত হয়েছে। বিজ্ঞাপন হিসেবে খরচটা একটু বেশিই হয়েছে। এর আগে রেস্টুরেন্ট ওয়েটার হিসেবে আমদানি হয়েছে রোবট। তার বিজ্ঞাপন খরচ আর প্রাপ্তি কেমন হলো জানি না। মনে পড়ে, এ দেশে যখন প্রথম কম্পিউটার আসে, তখন বহু দোকানে বিজ্ঞাপন দেওয়া হতো, কম্পিউটার দিয়ে চোখ দেখা হয়, হাত দেখা হয়! বোঝানোর চেষ্টা হতো, কম্পিউটার…বিস্তারিত

উন্নয়ন ও সুশাসন আলাদা কিছু নয়

উন্নয়ন ও সুশাসন আলাদা কিছু নয়এক–একজন জীবন্ত মানুষ উধাও হয়ে যাচ্ছেন, হয় প্রাণহীন দেহ পড়ে থাকছে কোথাও অথবা তার কোনো চিহ্নই থাকছে না। এই রাষ্ট্রেরই নাগরিক তাঁরা। সর্বজনের টাকায় রাষ্ট্র চলে, তার শানশওকত বাড়ে। সেই রাষ্ট্র চালায় যে সরকার, তারা এসব নিয়ে তামাশা করে, মিথ্যা কথা বলে, চুপ করিয়ে দেয়, পাগল বানায়। প্রতিবাদের ওপর চড়াও হয়।এক–একজন জীবন্ত মানুষ উধাও হয়ে যাচ্ছেন, হয় প্রাণহীন দেহ পড়ে থাকছে কোথাও অথবা তার কোনো চিহ্নই থাকছে না। এই রাষ্ট্রেরই…বিস্তারিত

তৃতীয় ‘উন্নয়ন’ দশক

তৃতীয় ‘উন্নয়ন’ দশক‘উন্নয়নের’ ওপর খুব জোর দিচ্ছে বর্তমান সরকার। ‘উন্নয়ন’ প্রকল্প যাতে দ্রুত বাস্তবায়ন হয় তার জন্য সব রকম ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। যেকোনো পরিমাণ ব্যয় বরাদ্দ, যেকোনো শর্তে ঋণ গ্রহণ, যেকোনো দমন-পীড়নে কোনো কার্পণ্য বা দ্বিধা নেই। ইতিমধ্যে বহু প্রকল্পে বিশ্বে সর্বোচ্চ ব্যয়ের রেকর্ড হয়ে গেছে বাংলাদেশের। চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রায় সব ধরনের জিনিসপত্রের দাম বেড়েছে। শিক্ষা, চিকিৎসা, ভর্তি, নিয়োগ—সবই এখন টাকার খেলা। সরকার নিজে গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়াচ্ছে বারবার, কর-শুল্ক বাড়াচ্ছে। জিডিপি বাড়ছে।…বিস্তারিত

Page 3 of 23